বাড়ি ফেরা

269
বাড়ি ফেরা
বাড়ি ফেরা শিশুতোষ চলচ্চিত্রটি বিভিন্ন মহলে বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

সুকান্ত বিশ্বাস

অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র বাবলু। খুবই সহজ সরল, শান্তশিষ্ট স্বভাবের এক ছেলে। তবে একদিন স্কুল থেকে ছুটে পালিয়ে যায়। কিন্তু সে নিজের বাড়িতে না গিয়ে ট্রেনে উঠে অজানা গন্তব্যে রওনা হয়। তার সেই অজানা পথে চলার মাঝে পরিচয় হয় মিলন নামের একটি ছেলের সাথে। মিলন আবার খুব দুষ্টু ও চঞ্চল চরিত্রের। সে পড়ালেখা করে না, দর্জি হিসেবে শহরের এক দোকানে কাজ করে। পরিচয়ের প্রথম পর্বটা সৌহার্দ্যপূর্ণ না হলেও ধীরে ধীরে দুজনের মাঝে বন্ধুত্ব তৈরি হয়ে যায়। তারা দিনভর গ্রামের এদিক-সেদিক ঘুরে বেড়ায়। গ্রাম ঘুরতে গিয়ে তাদের সাথে পরিচয় ঘটে এক কৃষকের। ছোট ছোট এমন অনেক ঘটনা দিয়েই তাদের দিন পার হয়ে যায়। তবে দিনশেষে বাবলু কি তার বাড়িতে ফিরে যায়? কেনই বা সে স্কুল থেকে পালিয়েছিল? এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এই চলচ্চিত্র।

বাড়ি ফেরা শিশুতোষ চলচ্চিত্রের একটি দৃশ্য
বাড়ি ফেরা শিশুতোষ চলচ্চিত্রের একটি দৃশ্য

 

 

 

 

রাজবাড়ী শহর থেকে নির্মিত এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি ঘুরে-বেড়িয়েছে জাতীয়-আন্তর্জাতিক পর্যায়ের চলচ্চিত্র উৎসবগুলোতে। এখন পর্যন্ত এটি দেশের ১৬টি উৎসবে মোট ১৩৭ বার প্রদর্শিত হয়েছে। পুরস্কার অর্জন করেছে ৩টি। ২০১৬ সালে ডিসেম্বর মাসের ১৬ তারিখে ঢাকার উত্তরাতে আয়োজিত ‘ভিক্টোরি ডে শর্টফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১৬’-তে ‘বেস্ট ফিল্ম’ এওয়ার্ড অর্জন করে চলচ্চিত্রটি। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ৪ তারিখে ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজে আয়োজিত ‘৩য় জাতীয় আর্ট এন্ড মিউজিক ফেস্টিভ্যাল ২০১৭’-তে ‘২য় সেরা চলচ্চিত্র’ পুরস্কার অর্জন করে। এছাড়াও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত, ৬৪ জেলা শিল্পকলা একাডেমির ব্যবস্থাপনায় দেশব্যাপী একযোগে ২৮ থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, চারদিনব্যাপী
“বাংলাদেশ শিশু চলচ্চিত্র উৎসব ২০১৭” আয়োজিত হয়। উৎসবে মোট ৪০টি শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়। এই উৎসবে শিশু নির্মাতা বিভাগে ‘শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র’ পুরস্কার অর্জন করে ‘বাড়ি ফেরা’।
এছাড়াও ‘১০ম আর্জন্তাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব বাংলাদেশ ২০১৭’, ‘চিটাগং শর্টফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১৭’, এমআইএসটি ড্রামা এন্ড ফিল্ম সোসাইটি আয়োজিত ‘বায়োস্কোপ ফিল্ম ফেস্টিভাল ২০১৭’, ইউ.আই.ইউ থিয়েটার এন্ড ফিল্ম ক্লাব আয়োজিত ‘ইন্টারন্যাশনাল ইন্টার ইউনিভার্সিটি শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভাল ২০১৭’, ‘সিলেট ফিল্ম ফেস্টিভাল ২০১৭’, ‘৯ম ইন্টারন্যাশনাল ইন্টার ইউনিভার্সিটি শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভাল ২০১৭’, এমআইএসটি আয়োজিত ‘অঙ্কুর ইন্টার ইউনিভার্সিটি কালচারাল ফেস্ট ২০১৭’, ‘১ম ইন্টার ইউনিভার্সিটি শর্ট ফিল্ম কম্পিটিশন ফিল্মিয়েস্তা বুয়েট ২০১৮’, ‘গ্লোবাল ইয়ূথ ফিল্ম ফেস্টিভাল লক্ষ্মীপুর ২০১৮’, ‘সিএইচটি ফিল্ম ফেস্টিভাল ২০১৯’-তে অফিসিয়াল নমিনেশন অর্জন ও প্রদর্শিত হয়েছে চলচ্চিত্রটি।
চলচ্চিত্রের পরিচালক জামসেদুর রহমান সজীব বর্তমানে পড়ালেখা করছেন ঢাকা কলেজে, বাংলা বিভাগে। চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, ‘ছোটবেলা থেকেই চলচ্চিত্রের প্রতি খুব আগ্রহ ছিল। লেখালেখির অভ্যাস ছিল। এক সময় মনে হল বিকল্পধারার চলচ্চিত্র নির্মাণ চর্চা সম্ভব, সেখান থেকেই মূলত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের পথ শুরু।’
‘বাড়ি ফেরা’ নিয়ে তিনি জানান, ‘খুব সহজ ভাষায় একটা গল্প বলতে চেয়েছি। বাড়ি ফেরা সেটারই উদাহরণ।’

এক নজরে বাড়ি ফেরা চলচ্চিত্রের সকল কলাকুশলী: অভিনয়- স্বপ্নীল দে, সুমিত ভৌমিক, ফরিদুল ইসলাম সাগর। সংগীত পরিচালক- তন্ময় সাহা দুর্জয়। টাইটেল লোগো- মামুন হোসাইন। প্রোডাকশন কন্ট্রোলার- তালহা বিন মাসুম। সহকারি পরিচালক- সুকান্ত বিশ্বাস, পিয়াল মাহমুদ। নির্বাহী প্রযোজক- সেক সাদী, মুঈদ হাসান তড়িৎ। প্রযোজক- আলটিমেট ড্রিমারস্ প্রোডাকশন। কাহিনী, চিত্রনাট্য, চিত্রগ্রহণ, সম্পাদনা ও পরিচালনা- জামসেদুর রহমান সজীব।

চলচ্চিত্রটির ইউটিউব লিংক: bit.ly/barifera