আজ দুখুর জন্মদিন

194
আজ দুখুর জন্মদিন
কাজী নজরুল ইসলাম। ছবি সংগৃহীত।

মোহিত কামাল

তাঁর নাম দুখু। নুরু বলেও ডাকা হতো তাঁকে। ছেলেবেলা থেকেই অসম্ভব মেধাবী দুখু পড়াশোনার জন্য তীব্র টান বোধ করতেন। সোনার চামচ নয়, দুখের চামচ মুখে নিয়ে জন্মানো দুখু সুদূর পশ্চিম বঙ্গের বর্ধমান জেলার চুরুলিয়া গ্রাম থেকে চলে এসেছিলেন ত্রিশালের দরিরামপুর। কেবল অসহায়ত্বের জন্য নয়, পড়তে পারবেন, পড়াশোনার সুযোগ পাবেন- এ অন্তর্নিহিত মোটিভ’ই ছিল তাঁর প্রেষণার মূল স্রোত।
চুরুলিয়া থেকে দরিরামপুর, তারপর দরিরামপুর থেকে রানিগঞ্জ শিয়ারশোল রাজ স্কুল হয়ে সেনাবাহিনীতে যাওয়ার সময়কাল ধরে লেখা হয়েছে কিশোর উপন্যাস ‘দুখু’ ‘দুখু দ্বিতীয় খণ্ড’ এবং ‘দুরন্ত দুখু’। দুখের চামচ নিয়ে জন্মালেও সোনার চামচ উপহার দিয়ে গেছেন তিনি বাঙালি জাতিকে।
তিনি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম।

মোহিত কামালের লেখা 'দুখু' বইটির প্রচ্ছদ।
মোহিত কামালের লেখা ‘দুখু’ বইটির প্রচ্ছদ।

এ কিশোর উপন্যাসের আলোয় আলোকিত হোক আমদের নতুন প্রজন্মের মনভুবন, মনেপ্রাণে চাই। মা-বাবারা অগ্রণী দায়িত্ব পালন করতে পারেন। সন্তানের হাতে তুলে দিতে পারেন নজরুলের শৈশব-কৈশোর কাল। নিজেরা-ও পড়ে দেখতে পারেন- কী কঠোর শ্রম ঢেলেছিলেন দুখু পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য।

আজ ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, সোমবার । ২৫ মে ২০২০। কবির ১২১ তম জন্মবার্ষিকী, নজরুলজয়ন্তী।
এদিনে, করোনার ভয়াল সময়ে, নজরুলের কণ্ঠে বলতে চাই :
হিন্দু না ওরা মুসলিম, ও-ই জিজ্ঞাসে কোন জন, কাণ্ডারী বলো ডুবিছে মানুষ, সন্তান মোর মা’র।

 

লেখক : কথাসাহিত্যিক, বাংলা একাডেমি ফেলো, সাহিত্য সাময়িকী শব্দঘর এর সম্পাদক ও জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক।

 

[ লেখাটি লেখকের ফেসবুক ওয়াল থেকে নেয়া হয়েছে। ]